সিংহ রাশি

রাশিচক্র
 
সিংহ রাশি

রাশিচক্রের পঞ্চম ঘর, দ্বিতীয় স্থিররাশি ও অগ্নিরাশি। আদিত্যদেব স্বয়ং এই রাশির অধীশ্বর।

মঘার ১৩ ডিগ্রী ২০ মিনিট, পূর্ব ফাল্গুনীর ১৩ ডিগ্রী ২০ মিনিট এবং উত্তর ফাল্গুনীর ১৩ ডিগ্রী ২০ মিনিট নিয়ে সিংহ রাশি গঠিত। অধিপতি রবি।

দৈহিক গঠনঃ বৃহদ্বপু, প্রশস্ত স্কন্ধ,বৃহৎগোলাকার মস্তক,অল্পকেশ, সুন্দর ভ্রু, পিঙ্গলবর্ণ চক্ষুঃ,হাড় শক্ত, পূর্বদিক এবং শীর্ষোদয়।
 
সিংহ রাশির প্রকৃতি (চন্দ্রস্থিত রাশি অর্থাৎকোষ্ঠী মতে) পত্রিকা মতে নয়
 
বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন >>
 
কখন আপনার অর্থ আসবে?

১। লগ্নের পঞ্চমে শুক্র বক্রী না হয়ে অবস্থান করলে এবং একাদশে শনি থাকলে, অর্থচিন্তা আপনার থাকবে না। ২।এখন আপনার কি দশা আছে দেখুন।দ্বিতীয়, চতুর্থ, পঞ্চম, নবম ও একাদশপতির দশাতে অর্থ হাতে আসে।তবে কথা হলো উপরোক্ত যে কোন পতির দশাই চলুক, রাশিচক্রে সেই গ্রহটি শুভ থাকার দরকার।তাছাড়া দশাধিপতি থেকে অন্তর্দশাপতি দ্বাদশে যদি থাকে, তাহলে অশুভ। ৩।ব্যবসাদারদের অষ্টমপতির দশায় বা অন্তর্দশায় আর্থিক অবস্থা শুভ ফল দেবে।৪।সপ্তমপতির মহাদশা কালে যদি সপ্তম, অষ্টম, দশম, একাদশ, পঞ্চম বা তৃতীয়পতির অন্তর্দশা হয়, তাহলে ব্যবসায় খুব লাভ হবে। ৫।ষষ্ঠপতির দশায় শ্রমিকগণ বেশী উপার্জনে সক্ষম হতে পারেন। ৬।দ্বিতীয়, চতুর্থ, পঞ্চম, অষ্টম, নবম ও একাদশপতি গোচরে ভ্রমন সময়ে নিজেদের স্বক্ষেত্রে বা একে অপরের ক্ষেত্রে অথবা কোনও কোনও ক্ষেত্রে (ষষ্ঠ, অষ্টম ও দ্বাদশ ছাড়া) অপরের সঙ্গে মিলিত হলে, প্রচুর অর্থ হাতে আসবে। ৭।বৃহস্পতি ও শনির অবস্থানের জন্য যখন সিংহাসন যোগ হবে, তখন প্রচুর অর্থ হাতে আসতে পারে। ৮।দ্বিতীয়পতি যদি দশমে গোচরে চলে আসে ও সেই সময় যদি বৃহস্পতি বা শনি দশম স্থানে থাকে, প্রচুর অর্থ হাতে আসবে। ৯।দশমপতি যে সময়ে ধনস্থানে আসে, বৃহ্সপতি সেইসময় ধনস্থানে থাকলে প্রচুর অর্থ উপার্জন হবে।তবে ধনুলগ্নের পক্ষে এইরকম আয়-উপার্জন সম্ভব হবে না।

২০১৩ সাল কেমন যাবে?

বর্তমান বৎসরে যদি নিজেকে -----?

আর্থিক ক্ষেত্রে তেমন কোন ------ ?

বিবাহের ক্ষেত্রে বিশেষ হিসাব নিকাশ করতে ---- অন্যথায় ?

বিদেশ ভ্রমণ করতে হলে ২০১৩ আপনাকে----- ?

এই বৎসর অধিকাংশ সিংহ রাশির জাতক- জাতিকাদের পিতা মাতার ------ ?

বিবাহ করে অনেকেই ----- ?

দৈহিক বিষয়ে অনেক জাতক – জাতিকাকে ------- ?

সম্পদ সংক্রান্ত বিষয়ে ---- ?

শিক্ষা ক্ষেত্রে বিশেষ -----

দাম্পত্য জীবন নিয়ে বেশ কিছু -----

এ বৎসর অনেকে আবার ---

বন্ধু কত্তৃক বিশেষ ---- ?

১৯৮২- জুন থেকে ১৯৮৪ ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত যাদের জন্ম তারা চরম অশুভ ফল পাবেন সর্ব ক্ষেত্রে

যারা প্রতিকার নিয়েছেন তাহাঁদের ঐ সকল পাথর , কবচ, তান্ত্রিক বস্তু ১৯ জানুয়ারী থেকে নিষ্ক্রিয় হয়ে যাবে –

পূর্ব থেকে পুনরায় শোধন পুরশ্চরণ করে নিতে পারেন ।

১৯৭২ এর ফেব্রুয়ারী থেকে ১৯৭৩ এর নভেম্বর এর মধ্যে যারা সিংহ রাশির -------?

১৯৪৯ থেকে ১৯৫৩ এর মধ্যে যারা সিংহ রাশির ----?

পুনরায় ১৯৬৩ থেকে ১৯৬৫ জুলাই মাসের মধ্যে সিংহ রাশিদের জন্য ---?
 
বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন
 
রাশিচক্র