বৃষ

রাশিচক্র
 
বৃষ রাশি
 
দৈহিক গঠনঃ শুভ্রবর্ণ, দীর্ঘকায়, মাংসল ভরাট স্কন্ধ, প্রশস্ত ললাট, সুন্দর চক্ষুদ্বয় ও কৃষ্ণবর্ণ কেশ।

স্বরূপঃ যুগ্মরাশি, স্ত্রীকারক, স্থির পৃথ্বীরাশি, রাজোগুণী, দক্ষিণদিক, বৈশ্যকারক, পৃষ্ঠোদয়, অধিপতি শুক্র ও কালপুরুষের স্কন্ধ ও মুখ।

বৃষরাশির অধিপতি গ্রহ শুক্র। কৃত্তিকা নক্ষত্রের ১০ ডিগ্রী, রোহিণীর ১৩ ডিগ্রী ২০ মিনিট এবং মৃগশিরা ৬ ডিগ্রী ৪০ মিনিট নিয়ে বৃষরাশি গঠিত।
 
বৃষ রাশির প্রকৃতি (চন্দ্রস্থিত রাশি অর্থাৎ কোষ্ঠী মতে) পত্রিকা মতে নয়
 
বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন >>
 
কখন আপনার অর্থ আসবে?

১। লগ্নের পঞ্চমে শুক্র বক্রী না হয়ে অবস্থান করলে এবং একাদশে শনি থাকলে, অর্থচিন্তা আপনার থাকবে না। ২। এখন আপনার কি দশা আছে দেখুন। দ্বিতীয়, চতুর্থ, পঞ্চম, নবম ও একাদশপতির দশাতে অর্থ হাতে আসে। তবে কথা হলো উপরোক্ত যে কোন পতির দশাই চলুক, রাশিচক্রে সেই গ্রহটি শুভ থাকার দরকার। তাছাড়া দশাধিপতি থেকে অন্তর্দশাপতি দ্বাদশে যদি থাকে, তাহলে অশুভ। ৩। ব্যবসাদারদের অষ্টমপতির দশায় বা অন্তর্দশায় আর্থিক অবস্থা শুভ ফল দেবে। ৪। সপ্তমপতির মহাদশা কালে যদি সপ্তম, অষ্টম, দশম, একাদশ, পঞ্চম বা তৃতীয়পতির অন্তর্দশা হয়, তাহলে ব্যবসায় খুব লাভ হবে। ৫। ষষ্ঠপতির দশায় শ্রমিকগণ বেশী উপার্জনে সক্ষম হতে পারেন। ৬। দ্বিতীয়, চতুর্থ, পঞ্চম, অষ্টম, নবম ও একাদশপতি গোচরে ভ্রমন সময়ে নিজেদের স্বক্ষেত্রে বা একে অপরের ক্ষেত্রে অথবা কোনও কোনও ক্ষেত্রে (ষষ্ঠ, অষ্টম ও দ্বাদশ ছাড়া) অপরের সঙ্গে মিলিত হলে, প্রচুর অর্থ হাতে আসবে। ৭। বৃহস্পতি ও শনির অবস্থানের জন্য যখন সিংহাসন যোগ হবে, তখন প্রচুর অর্থ হাতে আসতে পারে। ৮। দ্বিতীয়পতি যদি দশমে গোচরে চলে আসে ও সেই সময় যদি বৃহস্পতি বা শনি দশম স্থানে থাকে, প্রচুর অর্থ হাতে আসবে। ৯। দশমপতি যে সময়ে ধনস্থানে আসে, বৃহ্সপতি সেইসময় ধনস্থানে থাকলে প্রচুর অর্থ উপার্জন হবে। তবে ধনুলগ্নের পক্ষে এইরকম আয়-উপার্জন সম্ভব হবে না।

২০১৩ সাল কেমন যাবে?

আপনাদের জন্য অতীব স্বরনীয় বৎসর ২০১৩ সাল যদি আপনি গ্রহের অশুভ প্রভাব মুক্ত থাকেন তবে।

ব্যবসা ক্ষেত্রে অসাধারণ ----- ?

বিদেশ ভ্রমন  এর জন্য ২০১৩ ----

শিক্ষা ক্ষেত্রে বিশেষ -----

দাম্পত্য জীবন নিয়ে বেশ কিছু -----

এ বৎসর অনেকে আবার ---

 
বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন
 
রাশিচক্র