দ্বাদশ ভাব থেকে কি কি বিচার হয়

  • প্রথম ভাব হতে শরীর, বর্ণ, আকৃতি, যশ, গুণ, স্থান, সুখাসুখ, প্রবাস ও দৈহিক শক্তিমত্তা বিচার্য্য।
  • দ্বিতীয় ভাব বা ধন স্থান থেকে-ধন সম্পর্কীয় বিষয়, নেত্র, মুখ, বাক্য, কুটুম্ব, মাসী/খালা, মায়ের বড় বোন ও ভাই, খাদ্য দ্রব্য স্বর্ণাদি ধাতু এবং ক্রয়-বিক্রয়ের শুভাশুভ বিচার্য্য।
  • তৃতীয় ভাব থেকে ভ্রাতা, বিশেষ করে কনিষ্ঠ ভ্রাতা, স্থিতি, পরাক্রম, সাহস, কর্ণ, বস্ত্র, ধৈর্য্য, বীর্য্য, দাস-দাসী, প্রতিপালিত লোক প্রভৃতি বিচার্য্য।
  • চতুর্থভাব থেকে বা সুখভাব থেকে বিদ্যা (মতান্তর বিদ্যমান), জননী, সুখ, সুগন্ধী, গো, বন্ধু, মনমানসিকতা, রাজানুগ্রহ, যানবাহন, ভূ-সম্পত্তি, গৃহ, পিতার সম্পদ বিচার্য্য।
  • পঞ্চম ভাব থেকে বিদ্যা (মতান্তর বিদ্যমান) ভক্তি, রাজানুগ্রহ, পুত্র, পিতা, বুদ্ধি, পূণ্যকর্ম, গুপ্তমন্ত্রণা প্রভৃতি বিচার্য্য।
  • ষষ্ঠ ভাব থেকে ষড়রিপু, শত্রু, ক্ষত, বিঘ্ন, ক্লেশ, নাভি, উদর, মাতুল, মায়ের ছোট ভাই ও বোন ইত্যাদি বিচার্য্য।
  • সপ্তম ভাব থেকে বিবাহ, স্ত্রী, স্বামী, জ্যেষ্ঠ ভ্রাত্রার পুত্র, গুড়, দধি, ক্ষীর, যাতায়াত, পদপ্রাপ্তি, মূত্রাশয়, নষ্ঠদ্রব্য, ব্যবসা-বাণিজ্য বিচার্য্য।
  • অষ্টম ভাব থেকে ফাঁড়া, জ্যেষ্ঠ ভগ্নির পুত্র, জীবন, মরণ, খাদ্যসুখ, ক্ষেত্রবিশেষে নিধন স্থান, জয় এবং পরাজয় বিচার্য্য।
  • নবম ভাব থেকে ধর্মের প্রতি মন-মানসিকতা, ভাগ্য (সুসময়) গুরুজনের অনুগ্রহ, ধর্মানুষ্ঠান, সাধনা, তীর্থযাত্রা প্রভৃতি বিচার্য্য।
  • দশম ভাব থেকে কর্ম, কর্মের শুভাশুভ, পিত্র, প্রভুত্ব, সমমান, ভূষণ, বসন, নিদ্রা, কৃষিকর্ম, সন্ন্যাস, ধর্ম বিষয়ক কর্ম, যশ, বিজ্ঞান, বিদ্যাজনিত যশ, উচ্চপদ লাভ প্রভৃতি বিচার্য্য।
  • একাদশ ভাব থেকে সর্ব বস্তু লাভ, যানবাহনাদী, কন্যা, মিত্র, বড় ও ছোট ভ্রাতার পুত্র বিচার্য্য।
  • দ্বাদশ ভাব বা ব্যয় ভাব থেকে দূরভ্রমণ, দাসত্ব, প্রভূত ব্যয়, সৌখ্য, রাজদন্ড, ছোট বোনের পুত্র, অতি ব্যয় কেন হচ্ছে প্রভৃতি বিচার্য্য।